নুসরাত হত্যার কথা স্বীকার করলেন অধ্যক্ষ সিরাজ

0
698
  |  রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ |  ৪:২৭অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক: মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার প্রধান আসামি ও ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

আজ রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে রাত ৮টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইনের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন অধ্যক্ষ সিরাজ।

পিবিআইয়ের চট্টগ্রাম বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার মো. ইকবাল বলেন, নুসতার হত্যার মামলার প্রধান আসামি অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দিতে তিনি জানিয়েছেন জেলহাজত থেকে তিনি নুসরাতকে হত্যার নির্দেশ দিয়েছেন। জেলে থাকা অবস্থায় নুর উদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন শামীম তার সঙ্গে দেখা করতে গেলে নুসরাতকে মামলা তুলে নিতে চাপ দেয়ার জন্য বলেন অধ্যক্ষ সিরাজ। কাজ না হলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিতেও নির্দেশ দেন তিনি।

গত ১০ এপ্রিল বুধবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শরাফ উদ্দিন আহমেদের আদালতে সাতদিনের রিমান্ড চাইলে আদালত অধ্যক্ষ সিরাজের পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সিরাজ উদ দৌলাসহ ৯ জন আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দি দেয়া আসামিদের মধ্যে রয়েছেন নুর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন শামীম, উম্মে সুলতানা পপি, কামরুন নাহার মনি, জাবেদ হোসেন, আবদুর রহিম ওরফে শরীফ, হাফেজ আবদুল কাদের ও জোবায়ের আহমেদ।

অধ্যক্ষ ও ইংরেজি প্রভাষকের এমপিও স্থগিত

নুসরাত হত্যার ঘটনায় সোনাগাজী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও ইংরেজি প্রভাষক আফছার উদ্দীনের এমপিও স্থগিত করেছে সরকার।

মাদ্রাসা সূত্রে জানায়, নুসরাতের শ্লীলতাহানির ঘটনায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলার বিরুদ্ধে সোনাগাজী থানায় মামলা হলে গত ২৭ মার্চ পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় ইংরেজি প্রভাষক আফছার উদ্দীনও গ্রেফতার হন।

এরপর মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তরে উক্ত ২ শিক্ষকের এমপিও স্থগিত করার জন্য চিঠি দিলে এমপিও নীতিমালার আলোকে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল রবিবার তাদের এমপিও স্থগিতের নথি অনুমোদন করেন।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here