দুই দশক পর সম্মেলন : অপরাধীরাও তদবির করছে কমিটিতে আসার

0
995
 নগর প্রতিবেদক |  শুক্রবার, জুন ১৮, ২০২১ |  ৮:২৮অপরাহ্ণ

দুই দশক পর আগামীকাল শনিবার (১৯ জুন) চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে নগরীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে এই সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যোগ দেবেন উদ্বোধক-প্রধান অতিথিসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

দীর্ঘদিন পর আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনটিকে ঘিরে রয়েছে উৎসাহ উদ্দীপনা। ঠিক তেমনি রয়েছে ক্ষোভ ও সমালোচনা। কারণ সম্মেলনিউপলক্ষে গঠিত বিভিন্ন প্রস্তুতি কমিটিতে রয়েছে নানা বিতর্কিতরা। ইয়াবা ব্যবসায়ী, কিশোর গ্যাং , বিএনপি থেকে অনুপ্রবেশকারীরাও রয়েছে এসব কমিটিতে।

তবে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা বলছেন, হয়তো ভুলে অনেক বিতর্কিতরা হয়তো ঢুকে গেছে। কিন্তু মূল কমিটিতে তারা আসবে না।

শনিবার সকালে ভার্চুয়ালি সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ। প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এ কে এম আফজালুর রহমান বাবুসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারাও সম্মেলনে যুক্ত থাকবেন। সম্মেলনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ২৫০ জন কাউন্সিলর ও ২৫০ জন ডেলিগেট উপস্থিত থাকবেন।

দীর্ঘদিন ধরে দুই ধারায় বিভক্ত নগর আওয়ামী লীগের একটি ধারার নেতৃত্বে ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের প্রয়াত সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ও অন্য ধারার নেতৃত্বে সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন। এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুর পর তার নেতৃত্বাধীন বলয়টির হাল ধরেছেন মহিউদ্দিনপুত্র শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করে জানা গেছে , নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারীদের মধ্যে কমপক্ষে ১০ জন নেতা আলোচনায় রয়েছেন। এবার কমিটিতে স্থান পাওয়ার জন্য শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল অনুসারীদের মধ্যে মো.সালাউদ্দিন, আজিজুর রহমান অজিজ, দেবাশীষ নাথ দেবু, কাউন্সিলর আবুল হাসনাত বেলালের নামই আলোচিত হচ্ছে বেশি।

অন্যদিকে আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারীদের মধ্যে রয়েছে হেলাল উদ্দিন, সুজিত দাশ, আব্দুর রশিদ লোকমান ও মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। এছাড়া আলোচনায় আছে দেবাশীষ আচার্য্যের নামও। তিনি সিডিএর সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুচ ছালামের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

এদিকে সম্মেলন উপলক্ষে গঠিত উপ কমিটিগুলো নিয়ে রয়েছে সমালোচনা। এছাড়া সম্মেলন উপলক্ষে ইয়াবা ব্যবসায়ী , চাঁদাবাজি ও কিশোর গ্যাং লিডাররা কমিটিতে আসার জন্য বিভিন্নজনকে দিয়ে তদবির চালিয়ে যাচ্ছে। অর্থ উপ কমিটিতে সদস্য হিসেবে থাকা এক সদস্য ছাত্রদল করা বলে অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া অন্যান্য উপ কমিটি নিয়ে রয়েছে অভিযোগ।

এদিকে ইয়াবা নিয়ে গ্রেপ্তার বহাদ্দারহাট এলাকার জাবেদ ইসলাম জাবেদও তদবির চালাচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটিতে আসা। তাকে র‌্যালী উপ কমিটিতে সদস্য করা হয়েছে। নগর আওয়ামী লীগের পদধারী এবং এক জনপ্রতিনিধির অনুসারী হিসেবে সে পরিচিত। ইয়াবা নিয়ে প্রথম বাকলিয়া থানা পুলিশের হাতে ধরা পড়ে। চান্দগাঁও, চকবাজার থানায় রয়েছে তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলা। বহদ্দারহাট স্বজন সুপার মার্কেটে দোকান দখলের জন্য গেলে বন্দুক দিয়ে গুলাগুলির ভিডিও ভাইরাল হয় সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এসব বিষয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ’র দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি জানান, কোনো অপরাধী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটিতে স্থান পাবে না। সবকিছু বিবেচনা করে নগর কমিটিতে ত্যাগী ও সাবেক ছাত্রনেতাদের কমিটিতে রাখা হবে। বিষয়টি আমার জানা ছিল না। আপনার কাছ থেকে শুনেছি। সম্মেলনের পর বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখবো।

এদিকে সম্মেলনের সর্বশেষ প্রস্তুতি সম্পর্কে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাবেদুল আলম মাসুদ নগরবাংলাকে বলেন, আমাদের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। দেশে প্রথম কোনো রাজনৈতিক দলের সম্মেলন ভার্চুয়ালি হচ্ছে। আশাকরি জাকজমকপূর্ণ এবং অনলাইনে ব্যাপক অংশগ্রহণের মাধ্যমে সম্মেলন শেষ হবে।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here